1. news@patiyaralo.com : patiyar alo : patiyar alo
  2. admin@www.patiyaralo.com : news :
শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:৪৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
শামসুল হুদা ও বদিউল আলম মজুমদারের সমালোচনায় সিইসি সংসদে নির্বাচন কমিশন বিল পাস বোয়ালখালী থানার পুলিশের বিরুদ্ধে হত্যা মামলার আটককৃত আসামী ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ বোয়ালখালী প্রেসক্লাবকতৃক সংবর্ধিত হলেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাসহ ৩ মানবতার স্বাস্থ্য সেবক বিশ্ববাজারে যাচ্ছে বাংলাদেশের তৈরি মোবাইল হ্যান্ডসেট সিনিয়র ছাত্রকে থাপ্পড়, জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী বহিষ্কার স্বর্ণ এবং এলুমিনিয়ামের তৈরি বিশ্বের সর্ববৃহৎ কুরআনের প্রদর্শনী দুবাইতে আন্দোলন চালিয়ে যেতে শাবি শিক্ষার্থীদের শপথ মালয়েশিয়ায় পুলিশকে ঘুষ সাধায় বাংলাদেশিকে ২ লাখ টাকা জরিমানা টোঙ্গার আগ্নেয়গিরির বিস্ফোরণ ছিল পরমাণু বোমা থেকে কয়েকশ’ গুন শক্তিশালী

বগুড়ায় ভোটকেন্দ্রে বিজিবির গুলিতে নিহত ৪

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: বুধবার, ৫ জানুয়ারী, ২০২২
  • ২৮ বার পড়া হয়েছে

বগুড়ার গাবতলীর একটি কেন্দ্রে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীর ফলাফল ঘোষণা নিয়ে দায়িত্বশীলরা গড়িমসি করায় বিক্ষুব্ধ সমর্থকরা কেন্দ্র ভাংচুর, বিজিবি, পুলিশ ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িতে হামলা চালিয়েছেন। এছাড়া বিভিন্ন সড়কে গাছের গুঁড়ি ফেলে ও অবস্থান নিয়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হয়।

বুধবার সন্ধ্যায় বালিয়াদীঘি ইউনিয়নের কালাইহাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বিজিবি সদস্যরা অন্তত ২৫ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করেছেন। এ সময় এক নারীসহ চারজন নিহত ও অন্তত পাঁচজন আহত হয়েছেন। আহতদের বগুড়া শজিমেকসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আলী হায়দার চৌধুরী গুলিতে চারজন নিহত হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তবে গাবতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রওনক জাহান জানান, আত্মরক্ষার্থে বিজিবি সদস্যরা গুলিবর্ষণ করলেও কেউ নিহত হয়েছেন কি না তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

তিনি বলেন, হামলায় দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যাজিস্ট্রেট শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ আহমেদ, একজন পুলিশ ও একজন বিজিবি সদস্য আহত হয়েছেন।

গুলিতে নিহতরা হলেন- গাবতলী উপজেলার বালিয়াদীঘি ইউনিয়নের কালাইহাটা গ্রামের খোকন মণ্ডলের স্ত্রী কুলসুম আকতার (৩৫), একই গ্রামের মৃত ছিফাতুল্লাহর ছেলে আবদুর রশিদ (৬০), মকবুল হোসেনের ছেলে আলমগীর হোসেন (৩৫) ও মৃত ছহির উদ্দিন আকন্দের ছেলে খোরশেদ আলী (৭০)।

আহতদের কয়েকজন হলেন- মালিয়ানডাঙ্গা গ্রামের সাবেক মেম্বর আবদুর রশিদ, মেহেদী ও রাসিব।

স্থানীয়রা জানান, বুধবার দিনভর ভোটগ্রহণ শেষে সন্ধ্যায় গাবতলী উপজেলার বালিয়াদীঘি ইউনিয়নের কালিয়াহাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গণনা চলছিল। ওই কেন্দ্র আওয়ামী লীগ প্রার্থী ইউনুস আলী ফকিরের বাড়ির কাছে। ভোট গণনা হলেও প্রশাসনের কর্তারা সেখানে ফলাফল ঘোষণা দিতে অসম্মতি জানান। তারা ব্যালট বগুড়া সদরে আনার প্রস্তুতি নেন।

অভিযোগ উঠে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা তার আত্মীয় বিএনপির স্বতন্ত্র প্রার্থী চশমা মার্কার সাকিউল ইসলাম তিতু বা ঘোড়া মার্কার মাহবুবুর রহমানের পক্ষ নিচ্ছেন। এ সময় নৌকা প্রার্থীর সমর্থকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন। তারা ফলাফল ঘোষণার দাবিতে সড়কে কাঠের গুঁড়ি ফেলে অবরোধ করেন। শত শত নারী পুরুষ লাঠিসোটা নিয়ে রাস্তায় অবস্থান নেন এবং মারমুখী হয়ে উঠেন।

তখন দায়িত্বরত ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে বিজিবি সদস্যরা ২০-২৫ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করেন। এ সময় অন্তত চারজন নিহত ও ৫-৬ জন আহত হওয়ার খবর প্রচার হলে নৌকা মার্কার বিক্ষুব্ধ সমর্থকরা কেন্দ্রে ব্যাপক ভাংচুর চালান। তারা ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ ও বিজিবি সদস্যদের গাড়ি ভাংচুর করেন।

এ প্রসঙ্গে দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যাজিস্ট্রেট শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ আহমেদ কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

গাবতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রওনক জাহান জানিয়েছেন, আত্মরক্ষার্থে বিজিবি সদস্যরা ২০-২৫ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করেছেন। তবে কেউ নিহত হয়েছেন কি না তা নিশ্চিত হতে পারেননি। রাতে এ খবর পাঠানোর সময় এলাকার পরিস্থিতি থমথমে অবস্থা বিরাজ করছিল।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত